ছাত্র ছাত্রীদের অনলাইনে আকর্ষণীয় ৬টি জব। - Graphic School

Blog

ছাত্র ছাত্রীদের অনলাইনে আকর্ষণীয় ৬টি জব।

হ্যালো বন্ধুরা,

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন সবাই। আশা করছি আপনারা অনেক ভালো আছেন। আজকের আলোচনার বিষয় অনলাইন জব। আজ কথা বলবো অনলাইনে আকর্ষণীয় ৬ টি জব সম্পের্ক। সাথে আছি সৈয়দ গোলাম রাব্বী …… চলুন শুরু করি……।

 

১/ সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারঃ

সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এই নামটির সাথে পরিচিত নয় আমন মানুষ পৃথিবীতে খুজে পাওয়া মুশকিল। পৃথিবীর প্রায় সকল প্রতিষ্ঠানের সোশ্যাল মিডিয়া এক্যাউন্ট (ফেইজবুক, টুইটার, স্কাইপি,ইনস্টাগ্রাম,ইত্যাদি) থাকে। আপনি তাদের সোশ্যাল মিডিয়া এক্যাউন্টগুলোতে তাদের প্রাডাক্ট বা সেবা সমূহ প্রাকাশ ও মেইন্টেইন করবেন এবং আপনার বসকে রিপোট প্রদান করবেন। আপনার যদি সোশ্যাল মিডিয়া সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকে আপনি হতে পারেন একজন সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার। আর সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার জব টি অনলাইনে খুবি আকর্ষণীয়।

২/ SEO স্পেশালিস্ট

SEO এর ফুল মিনিং হলো (Search Engine Optimization) । SEO এর কাজ হলো আপনার যদি কোন কন্টেন্ট (ওয়েবসাইট বা ওয়েবকন্টেন্ট, ইউটিউব ভিডিও ইত্যাদি) থাকে থাকে। যদি কেউ সার্চ ইঞ্জিনে আপনার কন্টেন্ট বা ওয়েবসাইট সার্চ করে তাহলে সার্চ ইঞ্জিনে আপনার কন্টেন্ট বা ওয়েবসাইট প্রথমে দেখাবে। আর এটাকে বলা হয় SEO করা । সারা বিশ্বে অনেক SEO স্পেশালিস্ট থাকলেও আজ ও আগামীতে SEO স্পেশালিস্টদের ডিমান্ড অনেক বেশি। এই সেক্টরে অনেক বেশি অর্থ উপার্জন সম্ভব অনলাইনে। তাই আপনি যদি SEO স্পেশালিস্ট হয়ে থাকেন তাহলে উজ্জল ভবিষ্যৎ আপনকে হাতছানি দিয়ে ডাকছে।

৩/ অনলাইন কনসালটেন্টঃ

কনসালটেন্ট শব্দের অর্থ হলো পরামর্শ দাতা। আপনার যে কোন বিষয়ে বিশেষজ্ঞতা থাকলে (আইটি এক্সপার্ট, বিজনেস ম্যান, ইত্যাদি) আপনি সেই বিষয়ে অনলাইনে পরামর্শ দিয়ে প্রতি মাসে প্রচুর অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। বিশ্বে আমন অনেক কনসালটেন্ট আছে যারা অনলাইনে তার ক্লায়েন্টদের পরামর্শ দিয়ে থাকে। পড়াশুনার পাশাপাশি আপনি যে বিষয়ে এক্সপার্ট সেই বিষয়ে অনলাইনে পরামর্শ দেয়া শুরু করুন।

 

৪/ ডাটা এন্ট্রি জবঃ

ডাটা এন্ট্রি জবের কাজ হলো ডাটা সংগ্রহ করা এবং ক্লায়েন্ট পাঠানো। লেখাপড়ার পাশাপাশি আপনি একটা সাইড ইনকাম করতে পারেন। অনলাইন মার্কেট প্লেসে থকে আপনি এই ধরনের কাজ পাবেন। প্রথমে যদিও একটু পরিশ্রম করতে হবে। ডাটা এন্ট্রি কাজ হলো আপনার শুধু একটি কম্পিউটার, একটি স্মাট ফোন এবং ইন্টারনেট কানেকশন প্রয়োজন। ডাটা এন্ট্রি জবে আপনি টেক্সট ক্রিয়েশন (যেমনঃ ক্লায়েন্ট আপনাকে একটি টপিক দিবে আপনি সেই টপিকের উপর বিস্তারিত লিখতে হবে।  অথবা অনলাইন সার্ভে হতে পারে কোন কম্পানি বা প্রোডাক্ট সম্পর্কে। আবার আপনি ডাটা এন্ট্রি জব হিসাবে এন্ড্রোইড এপপ্স টেস্টিং কাজও করতে পারেন। গুগল প্লে স্টর থেকে এপপ্স টি ফোন ইন্সটল করে গুড রিভিউ দিতে হবে। তবে একটা কথা ইমেজ ক্যাপশন টাইপের ডাটা এন্ট্রি জবের থেকে দূরে থাকুন কারণ এই টাইপের জবে আপনার ইন্টারনেট বিল উঠবে না।

 

৫/  রাইড শেয়ারিং জবঃ

ছাত্র হোক বা ছাত্রী এখন সবাই পড়াশুনার পাশাপাশি রাইড শেয়ারিং জব করে অনেক টাকা আয় করছে। এই কাজের জন্য শুধু দরকার মটর বাইক বা বাই সাইকেল। অবসর সময়ে ছাত্র-ছাত্রী রাইড শেয়ার করে নিজেদের প্রয়োজনীয় অর্থ উপার্জন করছে। যদিও বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায়  রাইড শেয়ারিং  জব শুরু হয় নি। তবে আশা করছি কিছু দিনের মধ্যেই সারা বাংলাদেশেই প্রতিটি জেলায় শুরু হয়ে যাবে। এই জবে আপনি যে রকম রাইড শেয়ার করবেন সে রকম অর্থ আয় করতে পারবেন।

 

৬/ পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টেশন ডিজাইনারঃ

পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টেশন ডিজাইন আপনার জন্য অর্থ আয় করার অন্যতম মাধ্যম হতে পারে। আপনি যদি কোন সেমিনারে উপস্থিত থেকে থাকেন। অথবা অনলাইনে কোন সেমিনার দেখে থাকেন সেখানে অনেক বড় স্কিনে সুন্দর ভাবে যা কিছু উপস্থাপন করে হয় তাকেই বলে পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টেশন ডিজাইন । আপনি যদি পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টেশন ডিজাইনে এক্সপার্ট হয়ে থকেন আপনি পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টেশন ডিজাইন করে আপনার ক্যারিয়ার ডেভেলপ করতে পারেন অনেক দূত। অনলাইন ও অফলাইনে এই পেশের ডিমান্ড অনেক।

 

তো বন্ধুরা কেমন লাগলো আজকের বিষয়। আমি আশা করি আপনারা এই ৬ টি ক্যাটাগরির যে কোন একটি বিষয়ে এক্সপার্ট হয়ে আপনার পড়াশুনার পাশাপাশি অনেক ভালো পরিমাণ অর্থ আয় করতে পারবেন। যদিও অনলাইনে আরো অনেক জব আছে। আজকের মত এখানেই শেষ করছি। লেখার মধ্যে কোন ভুল হলে কমেন্ট করে জানাবেন। ভালো থাকবেন সবাই।

লিখেছেনঃ

সৈয়দ গোলাম রাব্বী 

Facebook Comment