ফটোশপে নিজের বিজনেস কার্ড ডিজাইন করুন খুব সহজে। - Graphic School

Blog

ফটোশপে নিজের বিজনেস কার্ড ডিজাইন করুন খুব সহজে।

আসসালামু আলাইকুম

কেমন আছেন আপনারা। গ্রাফিক স্কুলের পক্ষ থেকে ভালোবাসা রইলো আপনাদের প্রতি। আজ আপনাদের সাথে আমার প্রথম বিজনেস কার্ডের টিউটোরিয়াল নিয়ে আলোচনা করব। চলুন টিউটোরিয়াল শুরু করি…………………

 

বিজনেস কার্ড কি?

বিজনেস কার্ড হচ্ছে এমন একটি কার্ড যা আপনার বা আপনার প্রতিষ্ঠানের পরিচয় প্রকাশ করে থাকে। ধরুন আপনি একজন ডক্তার বা উকিল আপনার একটি চেম্বার আছে কিন্তু অনেকেই তা জানেনা। এখন আপনি যদি আপনার চেম্বারের নাম ও আপনার নাম পদবীসহ ৩.৫*২ ইঞ্চি সাইজের একটি কার্ড তৈরি করেন তবে তাকে বিজনেস কার্ড বলবে।

 

বিজনেস কার্ডের সাইজ কত?

সাধারন তো ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস কার্ডের সাইজ ব্লিড এরিয়া সহ ৩.৭৫*২.২৫ ইঞ্চি এবং ব্লিড এরিয়া ছাড়া ৩.৫*২ ইঞ্চি হয়ে থাকে। এখানে ব্লিড এরিয়া বলতে প্রিন্ট করার পর যে অংশ কেটে বাদ দেয়া হয় তাকে বুঝানো হয়েছে।

 

কালার মোড কি?

বিজনেস কার্ড যেহেতু প্রিন্ট আলিমেন্ট তাই এতে অবশ্যই  ছি.এম.ওয়াই.কে(CMYK) কালার ব্যবহার করতে হবে। শুধু  বিজনেস কার্ডে নয় যে সব আলিমেন্ট প্রিন্ট করা হয় সেই সব আলিমেন্টেই ছি.এম.ওয়াই.কে(CMYK)কালার ব্যবহার করতে হবে।

 

 

হ্যালো পাঠক সাথে আছি আমি সৈয়দ গোলাম রাব্বী …  চলুন এখন আমরা বিজনেস কার্ড তৈরির টিউটোরিয়াল শুরু করি………

 

প্রথমে ফটোশপ ওপেন করুন। File àNew এ ক্লিক বা (Ctrl+N)

এখন যে বক্স আসলো  নিচের ইমেজের মতো বিজনেস কার্ডের জন্য প্রয়োজনীয় সাইজ  ব্লিড এরিয়া সহ ৩.৭৫*২.২৫ইঞ্চিটাইপ করে ওকে তে ক্লিক।

এখন Rectangular Tool (U) এর মধ্যমে সেন্টর থেকে  দুই টি যথাক্রমে ৩.৫*২ ও ৩.২৫*১.৭৫ ইঞ্চিবক্স নিয়ে শুধু স্ট্রোক কালার ১ পিটি রাখি এবং গাইড লাইন দিয়ে নিয়ে বক্স গুলো ডিলেত করি। এখন নতুন লেয়ার নিয়ে কি-ব্লাক কালার দেই। আমি আপনাদের বুঝানোর জন্য বিজনেস কার্ডের ফ্রন্ট ও ব্যাক পাট একসঙ্গে দেখানোর চেষ্টা করছি। ফ্রন্ট পাটে তেমন কোন কাজ নেই জাস্ট নিচের লেয়ারেকি-ব্লাক কালার দেই । ঠিক আপনার লোগ ও কোম্পানি নাম এবং ট্যাগ লাইন টাইপ করুন। ফ্রন্ট পাটের কাজ শেষ। ঠিক নিচের ইমেজের মত।

এবার ব্যাক পাটের কাজ। বিজনেস কার্ডের ডান পাশ থেকে বাম পাশে Rectangular Tool এর সাহায্যে Rectangular সেপ নিয়ে পছন্দ মত কালার দেই। এবার Rectangular Toolএর সাহায্যে ছোট একটি সেপ নিয়ে আগের সেপে যে কালার ইউজ করেছি তারচেয়ে একটু ডিপ কালার ইউজ করি। এবং সেপটি কপি করি ও বাম দিকে নিয়ে গিয়ে Ctrl চেপে এরেঞ্জ করি।

সেপ ৩ টি Group করে কী-বোডে অল্টার চেপে নিচের দিকে কপি করি। আকিই ভাবে আরও ২টি করে সেপ কপি করে তাতে প্রথমের মত ভিন্ন ভিন্ন কালার দেই। ঠিক উপরের ইমেজের মত। বিজনেস কার্ডের ডান পাশের সেপ গুলো উপরের ইমেজের মত এরেঞ্জ করে তাতে বিভিন্ন আইকন ও টেক্সট এড করি। এখন বিজনেস কার্ডের বাম পাশে উপরে আপনার নাম ও ডিজিনেসন টাইপ করুন এবং বিজনেস কার্ডের বাম পাশে নিচে আপনার লোগ ট্যাগ টাইপ করুন ঠিক উপরের ইমেজের মত।

 

ডিজাইন শেষ হলে  ফাইলে সেভ করুন। এরপর আপনি  ফাইলটি মকআপ করুন।

দেখুন আপনার ডিজাইন করা বিজনেস কার্ডে টি দেখতে কেমন লাগছে। ঠিক উপরের  ইমেজের মত। এবার মকআপ করা ফাইল টি ক্লায়েন্ট কে পাঠান।

 

তো পাঠক এটাই আপনাদের মাঝে উপস্থাপন করা বিজনেস কার্ডে ডিজাইনের প্রথম টিউটোরিয়াল। জানি না আপনাদের কাছে টিউটোরিয়ালটি কেমন লেগেছে। আশা করছি ভালো লেগেছে। কমেন্ট করতে ভুলো না । টিউটোরিয়ালে কোন ভুল হলেও কমেন্টে জানাবেন। ধন্যবাদ সবাইকে শেষ পর্যন্ত সাথে থাকার জন্য।

 

লিখেছেনঃ

সৈয়দ গোলাম রাব্বী 

Facebook Comment