মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের কিছু বিড়ম্বনার সমাধান জেনে নিন - Graphic School

Blog

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের কিছু বিড়ম্বনার সমাধান জেনে নিন

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড সফটওয়্যার চালানোর সময় আমরা কিছু সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকি। আসলে ছোট একটা সমস্যার জন্য অনেক গুরুত্বপুর্ন কাজ করতে আমাদের হিমসিম খেতে হয়। একটু কৌশল জানা থাকলেই আপনি এসব সমস্যা সমাধান করতে পারবেন। তো চলুন আর দেরি না করে যেনে নিই মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে কি ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে এবং সেগুলোর সমাধান পাবেন কিভাবে।

সমস্যা ১♦ এক ভার্সনে লেখার পরে অন্য ভার্সনে ডকুমেন্টটি ওপেন না হওয়া।

মনে করুন আপনি মাইক্রোসফট অফিস ২০১৬ ব্যবহার করছেন, আপনার একটি জরুরী ডকুমেন্ট প্রিন্ট করতে হবে কিন্তু আপনার প্রিন্টার নেই। আপনার বন্ধুর প্রিন্টার আছে কিন্তু সে মাইক্রোসফট অফিস ২০০৩ ব্যবহার করে। এ অবস্থায় আপনার ২০১৬ ভার্সনে লেখা ডকুমেন্টটি ২০০৩ ভার্সনে ওপেন হবেনা। এ সমস্যা সমাধান করার জন্য আপনাকে যা করতে হবে তা হচ্ছে ডকুমেন্টটি ওপেন করে File রিবনে ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করার পর Save As এ ক্লিক করলে আপনার সামনে এমন একটি পেজ আসবে।

এরপর আপনি Browse এ ক্লিক করবেন।

এরপর Save As ডায়ালগ বক্সে File Name এর যায়গায় আপনার কাঙ্ক্ষিত নামটি লিখবেন এবং Save As Type এর যায়গায় Word 97-2003 Document এ ক্লিক করে সেভ করতে হবে।

তাহলেই আপনি এ ডকুমেন্টটি ২০০৩ এবং তার আগের ভার্সন হলেও সেটাতে ওপেন করতে পারবেন।

সমস্যা ২♦ বিজয় কিবোর্ড দিয়ে বাংলা লিখতে সমস্যা হওয়া।

আমাদের দৈনন্দিন কাজে বাংলা লেখা অনেক জরুরী। আমরা মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে বিজয় কিবোর্ড দিয়ে বাংলা লিখে থাকি। বাংলা লিখতে গিয়ে আমাদের কিছু সমস্যা হয় যেমন কোন ওয়ার্ড লেখার পরে স্পেস চাপলে ওয়ার্ডটি বদলে যায়। এ সমস্যা থেকে সমাধান পেতে আপনাকে যা করতে হবে তা হচ্ছে ছবিতে দেখানো ফাকা যায়গায় মাউসের ডান বাটন ক্লিক করে Customize The Ribbon এ ক্লিক করতে হবে।

এরপর আপনার সামনে এমন একটি ডায়ালগ বক্স আসবে।

এরপর আপনাকে প্রথমে Proofing এবং পরে AutoCorrect Options এ ক্লিক করতে হবে।

ক্লিক করার পরে যে ডায়ালগ বক্স আসবে সেখানে ৭টি চেক বক্স থাকবে সেগুলোর সবগুলোতে টিক চিহ্ন উঠিয়ে দিয়ে OK করতে হবে।

তাহলে আর বাংলা লিখতে কোন সমস্যা হবেনা।

সমস্যা ৩♦ কপি পেস্ট এর সময় সিলেকশনের সমস্যা।

ধরুন আপনি একটি ডকুমেন্ট লিখছেন যেখানে একটি লাইন আপনাকে অনেকবার লিখতে হবে। সেটি আপনি বার বার না লিখে কপি করে নিয়ে প্রয়োজনের সময় পেস্ট করে সহজেই সময় বাঁচাতে পারবেন। কিন্তু যেটা সমস্যা হয় সেটা হচ্ছে একটা লাইন কপি করে পেস্ট করার পর কার্সরটি সেই লাইনে না থেকে নিচের লাইনে চলে আসে যা অনেক বিরক্তিকর একটা ব্যাপার। তো এ সমস্যা থেকে বাঁচার উপ্যায় হচ্ছে যখন লাইনটি সিলেকশন করবেন তখন সতর্কতার সাথে সিলেকশন করতে হবে। যেকোন লাইন কপি করার নিয়ম বামদিক থেকে ডান দিকে সিলেকশ্ন করতে হয়। সিলেকশনের সময় যদি ছবির মত হয় তখন আপনার সমস্যা হবে।

তাই সিলেকশন হয়ে গেলে যদি ডান পাশে ফাকা যায়গা থাকে তাহলে Shift+ ←(কিবোর্ডের বাম বাটন) ক্লিক করলে ঐ ফাকা যায়গাটি আর থাকবেনা।

এরপর কপি করে যতবার পেস্ট করুন কার্সর ঐ লাইনেই থাকবে আর কোন সমস্যা হবেনা।

সমস্যা ৪♦ ফন্ট জনিত সমস্যা

অনেকসময় কোন ডকুমেন্ট ওপেন করলে দেখা যায় যে ফন্টগুলো উল্টাপাল্টা অথবা সবগুলো অক্ষর একেকটা বক্স এর মত হয়ে আছে। এ সমস্যা হয় ফন্টের কারনে।  যে ফন্ট দিয়ে ডকুমেন্টটি লেখা হয়েছে সেই ফন্ট যদি আপনার ইন্সটল করা না থাকে তাহলে এমন সমস্যা হয়। এর সমাধান হচ্ছে Ctrl+A দিয়ে সবগুলো লেখা সিলেক্ট করে নিয়ে যদি সেটা বাংলাতে লেখা ডকুমেন্ট হয় তাহলে একটা বাংলা ফন্ট সিলেক্ট করতে হবে অথবা ইংরেজিতে লেখা হলে ইংরেজি ফন্ট সিলেক্ট করতে হবে। তাহলেই দেখবেন যে লেখাগুলো সব ঠিক হয়ে গেছে।

সমস্যা ৫♦ রিবন/মেনুবার হারিয়ে যাওয়া।

ছবিতে দেখুন কোন রিবন/মেনুবার নেই। মাইক্রোসফট অফিসে কাজ করার সময় ভুলবশত কোন কারনে রিবন/মেনুবার হারিয়ে যেতে পারে। এতে অনেকেই ভয় পেতে পারেন তবে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। ছোট একটা কাজ করলেই আপনি আবার আপনার রিবন/মেনু বারটি ফিরে পাবেন। এ জন্য আপনাকে যা করতে হবে তা হচ্ছে লাল দাগ দেয়া চিহ্নে ক্লিক করে Show Tabs and Commands এ ক্লিক করলে আবার সবকিছু আগের মত হয়ে যাবে।

তো এই ছিল আজকের পর্বে। আপনাদের যদি আরো কোন সমস্যা হয়ে থাকে তাহলে সেটা কমেন্টের মাধ্যমে জানান আমি সেটার সমধান করে দেয়ার চেষ্টা করবো। দেখা হবে আবার কোন পর্বে ততক্ষন সবাই ভাল থাকবেন সুস্থ থাকবেন। আল্লাহ হাফেজ।

Facebook Comment